ই-কমার্স ডেভেলপমেন্ট ট্রেনিং

ই-কমার্স কি?

ইন্টারনেটের মাধ্যমে ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা বা ব্যবসায়িক সুবিধা গ্রহণ করাকে ই-কমার্স বলে। ইন্টারনেট কমার্সকে সংক্ষেপে ই-কমার্স বলা হয়। মূলত, যে কোনো ব্যবসায় ইলেক্ট্রনিক্সের মাধ্যমে পরিচালনা করাই হল ই-কমার্স। যেমন অনলাইন শপিং, ইলেক্ট্রনিক পেমেন্ট, অনলাইন নিলাম, ইন্টারনেট ব্যাংকিং, অনলাইন টিকেটিং, ইত্যাদি বিষয়সমূহ ই-কমার্সের আওতাভুক্ত।

ই-কমার্স ওয়েবসাইটের সুবিধাসমূহঃ

ই-কমার্স ওয়েব সাইটে বিক্রয়যোগ্য বিভিন্ন ধরনের পন্য বা সেবার মূল্যসহ অন্যান্য বিবরণ দেওয়া থাকে। ক্রেতা ই-কমার্স ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নির্দিষ্ট পণ্যের অর্ডার দেন। অর্ডার গ্রহন করার জন্য ওয়েবসাইটে মূল্য পরিশোধের ব্যবস্থা থাকে। এখানে ক্লিক করলে ক্রেতার নিকট নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ পরিশোধ করতে বলা হয়। ক্রেতা প্রদত্ত কার্ডের প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সরবরাহ করে সম পরিমান অর্থ প্রদান করে। অর্থ পাওয়ার পর অর্ডার ফরমটির যাবতীয় কাজ শেষ হয়ে যায়। এ সংক্রান্ত তথ্য একই সাথে ই-মেইল আকারে ক্রেতা এবং বিক্রেতার নিকট প্রেরণ করা হয়। এরপর ক্রেতার নিকট পণ্য সরবরাহ করা হয়। ক্রেতা বেশি পরিমাণ পণ্য ক্রয় করলে বা প্রতিষ্ঠানের আওতাভুক্ত হলে পরিববহনের জন্য কোন ফি আদায় করা হয় না আবার অল্প পরিমাণে পণ্য ক্রয় করলে বা ক্রেতা প্রতিষ্ঠানের আওতাভুক্ত না হলে পরিববহনের জন্য পণ্য মূল্যের সাথে অতিরিক্ত ফি আদায় করা হয়। এটা অনেকাংশে নির্ভর করে পণ্য বিক্রয় কারী প্রতিষ্ঠানের উপর।

আপনি কেন ই-কমার্স ডেভেলপমেন্ট শিখবেন?

আমাদের দেশের সমস্যার কথা যদি বলি তবে প্রথমেই আসবে বেকার সমস্যা। এ দেশের অধিকাংশ লোক পড়াশুনা শেষ করেও চাকরি পায় না। এ সমস্যা সমাধানে আউটসোর্সিং হতে পারে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। আপনি ই-কমার্স ডেভেলপমেন্ট শিখে ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ পেতে পারেন। সেখানে আপনি ডলারে আয় করতে পারবেন। তাছাড়া আপনি একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করে নিজেই একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান চালাতে পারেন। সেখানে হয়তো আপনার পাশাপাশি আরও কিছু বেকারের কর্মসংস্থান হবে।

আপনি কোথায় ই-কমার্স ডেভেলপমেন্ট শিখবেনঃ

আপনি যদি ভাল মানের ই-কমার্স ডেভেলপমেন্ট প্রশিক্ষন গ্রহন করতে চান তবে আপনি উন্নতমানের আইটি কোম্পানীর সাথে যোগাযোগ করুন। যেমন স্বদেশ আইটি, স্বল্প মূল্যে ভালমানের ই-কমার্স ডেভেলপমেন্ট প্রশিক্ষন দিয়ে থাকে। এছাড়াও  প্রশিক্ষণ পরবর্তী সাপোর্ট দিয়ে থাকে। আপনার প্রদত্ত সময় যেন বেকার বা অলস সময় না হয় তাতে সর্বাত্বক প্রচেষ্টা থাকবে স্বদেশ আইটির। আপনি অন্য কোথাও প্রশিক্ষন গ্রহন করার পূর্বে স্বদেশ আইটির দক্ষতা একবার যাচাই করুন।